যতিচিহ্ন

প্রয়োজনীয় কিছু শুদ্ধ বানান | সমোচ্চারিত শব্দের ব্যবহার  | দেশি–বিদেশি কিছু শব্দের ব্যবহার  |

ডট/ফুলস্টপ (.)-এর ব্যবহার:

ইংরেজি শব্দকে বাংলায় সংক্ষিপ্ত শব্দ রূপে লেখার ক্ষেত্রে ডট ব্যবহার হবে

ড. (ডক্টর), লি. (লিমিটেড), মি. (মিস্টার) ।ইংরেজিতে Govt. (Government), Ltd. (Limited), Mr. (Mister), Dr. (Doctor)

ইংরেজি শব্দের সংক্ষিপ্ত বর্ণ রূপে (Abbreviation) ডট ব্যবহার না করাই ভালো।

SSC, HSC, SMS, MMS, BSS, BA, JSC, MPO, UN, BGB, BSF, RDRS, BRAC, BPL, IPL, ICC, BBC, WFP

এক্ষেত্রে ডট ব্যবহার করা ভুল নয়, তবে আমাদের দ্বারা ভুলের সৃষ্টি হতে পারে।

BSc, PhD লিখতে গিয়ে B.S.C., P.H.D. লেখা।BSc, PhD-তে ডট ব্যবহার এভাবে হবে B.Sc., Ph.D. শুধু মাঝে ডট দিলে চলবে না যেমন B.Sc, Ph.D অর্থাৎ Sc. ও D.-এর পরেও ডট হবে (অনুরূপ বাংলাতেও)

সুতরাং ভুল এড়াতে ডট ব্যবহার না করাই শ্রেয়

ইংরেজি শব্দের সংক্ষিপ্ত বর্ণ রূপ দ্বারা যদি শব্দ গঠন হয়, তাহলে এর মাঝে ডট ব্যবহার হবে না।

UNESCO, UNICEF.

বাংলা বানানের পরিচ্ছন্নতা রক্ষায় ডট বা হাইফেন ব্যবহার না করাই শ্রেয়।

এসএসসি, এইচএসসি, এসএমএস, এমএমএস, বিএ, বিকম, বিএসএস, বিএসসি, সি ইন এড, পিএইচডি, পিসি, আইসিসি, ইউএন, বিবিসি

বাংলায় ডট বা হাইফেন ব্যবহারে অনেক সময় ভুলের সৃষ্টিও হতে পারে। যথাসম্ভব এ ধরনের শব্দে হাইফেন ব্যবহার না করাই শ্রেয়।এসব শব্দে কমা (,) ব্যবহার করা যাবে না।

কোলন ( : )-এর ব্যবহার:

উদাহরণ বা দৃষ্টান্ত বোঝাতে কোলন ব্যবহার হয়।

বাংলা সন্ধি দু প্রকার: স্বরসন্ধি ও ব্যঞ্জনসন্ধি।

ব্যাখ্যামূলক/বিবরণমূলক শব্দে কোলন ব্যবহার হয়।

নাম: শামস

পিতার নাম: শামসুল

ঠিকানা: গ্রামপায়রাবন্দ, ডাকঘর পায়রাবন্দ, উপজেলা রংপুর, জেলা রংপুর।

বিষয়: বিনা বেতনে অধ্যয়নের জন্য আবেদন।

অনিল: বাতাস, বায়ু

অনীল: যা নীল নয় (নীল অর্থে)

গাণিতিক ক্ষেত্রে কোলন ব্যবহার হয়।

১:৯ (অনুপাত)

সময় ও তারিখে কোলন ব্যবহার হয়।

২:৩০ মিনিট

তারিখ: ১৬ ডিসেম্বর ২০১৩

নাটকের সংলাপের আগে কোলন ব্যবহার হয়।

দুকড়ি: কী চাই?

কাঙালি: আজ্ঞে, মহাশয় হচ্ছেন দেশহিতৈশী।

[দ্রষ্টব্য: ১ হতে ৪২ নং ক্রমিকগুলো লক্ষ্য করলে কোলনের ব্যবহার বুঝতে সুবিধা হবে।আমাদের অবশ্যই স্মরণ রাখতে হবে বিসর্গ আর কোলন এক নয়।বিসর্গ বাংলা বর্ণ; কোলন যতিচিহ্ন।]

হাইফেন/যুক্তচিহ্ন (-)-এর ব্যবহার :

সমাসবন্ধ পদে হাইফেন ব্যবহার হবে।

উপ-সহকারী, ৫৭০ খ্রিষ্টাব্দে মুহাম্মদ (সা.)-এর জন্ম, মুহাম্মদ (সা.)-কে আল-আমিন বলা হতো, বিনোদ (২৮)-এর মৃত্যু, Sub-district, SMS-এর মাধ্যমে পাঠাতে হবে, ISF-সহ, ৩-এর, ৫-সহ

এ ছাড়া শব্দকে ভেঙে দেওয়া ক্ষেত্রেও হাইফেন ব্যবহার হয়।

আন্ত-র্জাতিক

হাইফেনের শুরুতে বা শেষে কোনো ফাঁকা (স্পেস) হবে না।অর্থাৎ দুটি শব্দকে একত্রে রাখবে।

ড্যাশ ()-এর ব্যবহার:

এম ড্যাশ () আকারে হাইফেনের তিনগুণ বড়।এম ড্যাশ ()-এর বাম দিকটা শব্দের সাথে যুক্ত থাকে এবং ডান দিকটা ফাঁকা (এক স্পেস) রেখে শব্দ লিখতে হয়।একই লাইনে বা, একই প্যারায় যৌগিক ও মিশ্র বাক্যে দুই বা তারচেয়েও বেশি পৃথক বাক্য লেখার সময় তাদের মধ্যে সমন্বয় সাধন করতে ড্যাশ চিহ্ন ব্যবহার করা যায়।

তোমরা দরিদ্রের উপকার কর এতে তোমাদের সম্মান যাবে না বাড়বে

অসম্পূর্ণ বাক্যের শেষেও ড্যাশ ব্যবহার হয়

বাংলাদেশের রাজধানী হচ্ছে

ক. চট্টগ্রাম খ. খুলনা গ. ঢাকা ঘ. রাজশাহী।

এন ড্যাশ () আকারে হাইফেনের দেড়গুণ বড়।সমার্থক ও বিপরীত ধর্মী শব্দে এন ড্যাশ ব্যবহার হয়

দেশিবিদেশি, সত্যমিথ্যা ।এ ছাড়া থেকে বা হতে অর্থেও ব্যবহার হয়।যেমন ১০১২ বছর, ঢাকাখুলনা ।এ ধরনের শব্দে ইদানীং হাইফেন ব্যবহারের প্রবণতা বেড়ে যাচ্ছে।

কোটেশন মার্ক/ইনভার্টেড কমা/উদ্ধৃতিচিহ্ন ( ‘ ’ “ ” )-এর ব্যবহার:

শব্দকে চিহ্নিতকরণের ক্ষেত্রে একটি উদ্ধৃতিচিহ্ন ব্যবহার হয়।

‘সোনার তরী’ কবিতাটি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের লেখা

উক্তিবাচক শব্দে দুটি উদ্ধৃতিচিহ্ন ব্যবহার হবে।

রেজা বলল, “আমি এখন স্কুলে যাই।”

অ্যাপস্ট্রফি/লোপচিহ্ন (’)-এর ব্যবহার :

শব্দকে সংক্ষিপ্তকরণেও এর ব্যবহার হয়।

’৭১ সাল (১৯৭১ সাল), ’র (-এর) ।ইংরেজিতে যেমন I’m (I am), I’ll (I will or, I Shall).

কবিতায় ছন্দের মিল রাখতে লোপচিহ্ন ব্যবহার হয়।

বাংলা বানানে লোপচিহ্নের ব্যবহার যথাসম্ভব বর্জনীয়।

অবলিক/স্ল্যাশ/অথবা/বিকল্পচিহ্ন (/)-এর ব্যবহার :

বিকল্প শব্দের মাঝে অবলিক (/) বসে। সহজ কথায় এটা নয় ওটা এরূপ বোঝাতে অবলিক ব্যবহার হয়।

বৈবাহিক অবস্থা: বিবাহিত/অবিবাহিত

যেখানে দু-ই বিদ্যমান যেখানে বিকল্পচিহ্ন ব্যবহার হবে না

বিদ্যালয়ে শিক্ষক/কর্মচারী সংখ্যা কম বা, ছাত্র/ছাত্রী সংখ্যা অনেক বেশি।শুদ্ধরূপ হচ্ছে শিক্ষককমচারী ও ছাত্রছাত্রী (ছাত্রছাত্রী)।

স্মারক ও তারিখে অবলিক ব্যবহার হয়।

ঢাবি/পরী/২০১২-১৩, তারিখ- ১২/১২/২০১২খ্রি.।ইন্টারনেট ব্রাউজারের অ্যাড্রেস বারে লেখার সময় বলা হয় স্ল্যাশ।

যতিচিহ্নের কিছু অশুদ্ধ ও শুদ্ধ ব্যবহার :

চিহ্নের নাম                শুদ্ধ               অশুদ্ধ

কোলন                     :                 

কোলন-ড্যাশ              :              ঃ-

ড্যাশ                                      -

হাইফেন                   -                 

অশুদ্ধ ব্যবহার: পরীক্ষা/২০১২, ২০১২/১৩ শিক্ষাবর্ষ, ২০১২/১৩ অর্থবছর, ১ জানুয়ারি/২০১২ ।
শুদ্ধ ব্যবহার: পরীক্ষা ২০১২ অথবা, পরীক্ষা২০১২, ২০১২১৩ শিক্ষাবর্ষ, ২০১২১৩ অর্থবছর, ১ জানুয়ারি ২০১২।




 সূত্র: সহজ বাংলা বানান নিয়ম